মোহম্মদপুরে সন্তানকে জমি লিখে না দেওয়ায় মেয়েকে নিয়ে বাড়িছাড়তে হলো মায়েৱ - Alorpoth24.com | সত্য প্রকাশে কলম চলবেই

শিরোনাম

04 June, 2020

মোহম্মদপুরে সন্তানকে জমি লিখে না দেওয়ায় মেয়েকে নিয়ে বাড়িছাড়তে হলো মায়েৱ


মোঃ সাজেদুল ইসলাম, মাগুরা প্রতিনিধিঃ সন্তানকে জমি লিখে না দেওয়ায় এইচএসসি পরীক্ষার্থী মেয়েকে নিয়ে বাড়িছাড়া হতে হয়েছে মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার দীঘা গ্রামের সালমা বেগম নামে এক মাকে। ছেলের অত্যাচার এবং নিজের বাড়িতে আশ্রয় না পেয়ে থাকছেন স্বজনদের বাড়ি। মায়ের বড় ছেলের এমন আচরণে ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে লিখিত আবেদনের মাধ্যমে নিরাপত্তা ও আশ্রয় চেয়েছেন ওই মা। এলাকাবাসী জানান, ১৭ বছর আগে গাছ থেকে পড়ে মারা যান সালমা বেগমের স্বামী কায়েম মোল্যা। তারপর থেকে সালমা বেগম দুর্বিষহ দিন কাটিয়ে দুই ছেলে এবং এক মেয়েকে বড় করেছেন। বড় ছেলে হাবিবুর রহমানকে ২০১৯ সালের অক্টোবর মাসে বিয়ে দেন। তারপর থেকে জমি লিখে দেয়ার জন্য মায়ের উপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন শুরু করে হাবিবুর রহমান।

মা সালমা বেগম অশ্রসিক্ত কন্ঠে বলেন, “আমি ছেলে মেয়েরে অনেক কষ্টে পড়ালেখা করাইছি। মানুষ করছি। আমি বিভিন্ন জাগায় কাজ করছি। মাঠে কাজ করছি। তারপর ইউএনও অফিস থেকে চাল দিয়ে আইছিল, টাকা দিয়ে আইছিল। তার উপর ভিত্তি করে আমি ছেলে মেয়ে মানুষ করছি দিন রাত না খায়ে। হাঁস, মুরগী পুষে তাদের মানুষ করছি। বড়লোকদের বাড়ি এখনও কাম করি। তারপরও আমি ছেলের ভাত খাইনে। এরপরও আমারে এত নির্যাতন করতিছে। ছেলে ৭মাস বিয়ে দিছি। আমারে এখন মারে ফেলানোর হুমকি দিচ্ছে। মেয়ে এইচএসসি পরীক্ষার্থী তার বই খাতা আটকায়ে রাখছে। এই যুবতী মায়েরে নিয়ে আমি ঔ বাড়ি থাকতিছি। আমার এবং আমার মেয়েরে বাড়ি থাকার ব্যবস্থা করে দেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মিজানূর রহমান বলেন, তার নিরাপত্তা এবং আশ্রয়ের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

No comments:

Post a Comment