হোমনায় বিধবা নারীকে গণধর্ষণের অভিযোগে চার যুবক গ্রেফতার - Alorpoth24.com | সত্য প্রকাশে কলম চলবেই

শিরোনাম

28 April, 2020

হোমনায় বিধবা নারীকে গণধর্ষণের অভিযোগে চার যুবক গ্রেফতার


মইনুল ইসলাম মিশুক, হোমনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধি:
কুমিল্লার হোমনায় এক বিধবা নারীকে (২০) গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় জড়িত অভিযোগে চার যুবককে আটক করেছে পুলিশ। ধর্ষণের ঘটনায় ভিকটিম নিজে সোমবার হোমনা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মঙ্গলবার পুলিশ ভিকটিমকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।  

হোমনা-মেঘনা সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. ফজলুল করিম, ওসি আবুল কাসে আকন্দ, ইন্সপেক্টর (তদন্ত) আমিনুর রসুলসহ পুলিশের ফোর্স সোমবার রাতেই অভিযান পরিচালনা করে উপজেলার কালমিনা এলাকা থেকে ধর্ষণে অভিযুক্তদের গ্রেপতার করেন। ধর্ষণের অভিযোগ আটকরা হলো- সজিব ওরফে ডিজে (২২), রুবেল (২৮), শরিফ মিয়া (২৮), রিপন (২৬)।
অভিযোগ সূত্রে এবং ভিকটিমের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়. গত দেড় বছর আগে তার স্বামী মারা যান। তার এক শিশুপুত্র রয়েছে। গত ২/৩ মাস ধরে ওই নারীকে রাস্তা-ঘাটে একা পেলে রুবেল, শরিফ মিয়া, রিপন ও রফিক বিভিন্ন অশালীন কথাবার্তা এবং টাকার বিনিময়ে কুপ্রস্তাব দিত। রবিবার (২৬ এপ্রিল) সন্ধ্যার আগ মুহূর্তে ওই নারী তার শিশু পুত্রের জন্য খাবার কেনার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হন। আলীপুর স্টীল ব্রিজের পূর্ব পার্শ্বে রাস্তায় পৌঁছলে এরা সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে তাকে জোরপূর্বক একটি সিএনজিতে তুলে সজিব প্রঃ ডিজের বসত ঘরে নিয়ে যায়। সজিব তার ঘরের ভেতর রুবেল, শরিফ মিয়া, রিপন ও রফিকদের কাছে ওই নারীকে রেখে ঘরের দরজার বাইরে সে পাহারা দেয়। ওই সময়ে যুবকরা তাকে জোরপূর্বক ইয়াবা সেবন করায়। পরে তাকে হত্যার ভয় দেখিয়ে চারজন তার পরনের জামা কাপড় খুলে রাতভর জোরপূর্বক পালাক্রমে একাধিকবার ধর্ষণ করে। এরপর এরা পরের দিন সোমবার (২৭ এপ্রিল) ভোর পাঁচটার দিকে তাকে রামপুর জোড়া ব্রিজের ওপর ছেড়ে চলে যায়। পরবর্তীতে ওই নারী সেখানে কিছুক্ষণ বসে থেকে শারীরিকভাবে কিছুটা সুস্থ অনুভব করলে বাড়িতে ফেরেন। বাড়ি গিয়ে তার মাসহ প্রতিবেশীকে ঘটনা জানায়।
হোমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কায়েস আকন্দ বলেন, এক বিধবা নারীকে গণধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। চার ধর্ষককে আটক করা হয়েছে এবং মেয়েটিকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। 

হোমনা-মেঘনা সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. ফজলুল করিম বলেন, গণধর্ষণের অভিযোগ পেয়ে ওসি সাহেব, ইন্সপেক্টর (তদন্ত)কে নিয়ে সংশ্লিষ্ট এলাকায় অভিযান চালিয়ে চার ধর্ষককে আটক করা হয়েছে। 

No comments:

Post a Comment